মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

মাসিক সভাসমূহ

                 ৪নং ঘোনা ইউনিয়নের চোরাচালান প্রতিরোধ  কমিটির সভারকার্যবিবরনী

 সভাপতি       ঃ              অধ্যাপক ফজলুর রহমান চেয়ারম্যান ঘোনা ইউ.পি সাতক্ষীরা সদর , সাতক্ষীরা

তারিখ          ঃ              ২৯মার্চ ২০১২

সময়           ঃ               বিকাল ৪.০০ ঘটিকা

স্থান            ঃ               ঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তন সাতক্ষীরা সদর

উপাস্থিতি      ঃ               উপস্থিত সদস্য বৃন্দের হাজিরা পরিশিষ্ট - ‘‘ক’’।

 

সভার শুরুতে সভাপতি সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভার কাজ শুরু করেন । বিগত সভার কার্যবিবরনী সভায় পাঠ করে শুনানো হলে কারও কোন আপত্তি না থাকায় উহা দূঢ়ি করণ করা হয় । অতঃপর নিম্নোক্ত আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় ।

 

(১)       ঘোনা ইউনিয়নের বর্তমান চোরাচালান পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনার প্রারম্ভে সভাপতি বলেন ভারতীয় ভেজাল সার যাতে এ দেশে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য আমাদের সজাগ থাকতে হবে । এ বিয়য়ে তিনি ঘোনা ও গাজীপুর বিওপি কমান্ডারদের কাছে জানতে চান । চোরাচালান কমিটির সদস্য ডাঃ তৌফার রহমান বলেন ভারত থেকে ফেনসিডিল আসছে । বিওপি কমান্ডারগন সভায় জানান যে, সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান পূর্বের তুলনায় অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে । সভাপতি আর ও বলেন ভারত থেকে ফেনসিডিল সহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য যাতে কোন ক্রমেই এদেশে আসতে না পারে সে দিকে সজাগ দৃষ্টি দিতে হবে । এদেশে থেকে কিকি মালামাল পাচার হয় এবং কি কি মালামাল ভারত থেকে এদেশে আসে সে সম্পর্কে সভাপতি জানতে চাইলে উপস্থিত বিওপি কমান্ডারগন জানান বর্তমানে এদেশ থেকে রসুন সুপারী ভারতে পাচার হচ্ছে এবং ভারত থেকে ফেন্সিডিল চিংড়ী পোনা, ভেজাল সার, বিড়িসহ  ইত্যাদি মাদকদ্রব্য এদেশে আসছে ।

(২)      সভাপতি আর ও বলেন চিংড়ী পোনা চোরাই পথে ভারত থেকে আসছে মর্মে জানা যায় এবং সে গুলো উন্নত মানের নয় । সে কারনে যাতে ভারতীয় চিংড়ি পোনা এদেশে না আসতে পারে তার প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন ।

 

সিদ্ধান্ত সমুহ    ঃ       (ক) ভারত থেকে চোরাই পথে ফেন্সিডিল চিংড়ী পোনা, ভেজাল সার, বিড়িসহ  ইত্যাদি মাদকদ্রব্য এদেশে       

                            প্রবেশ বন্ধ করতে হবে ।

                           (খ) ভারতীয় হাস মুরগীর ডিম, বাচ্চাসহ লোকজনের অবৈধ প্রবেশ রোধ করতে হবে ।

                           (গ) এদেশ থেকে রসুন,সুপারি  ভারতে পাচার রোধ করতে হবে ।

বাস্তবায়নে      ঃ         ১। ইউ.পি সদস্য বৃন্দ ঘোনা ইউ.পি ।

                            ২। বিওপি কমান্ডর ঘোনা /গাজীপুর বিওপি ।

                            ৩। গ্রাম্য পুলিশ বৃন্দ/ ঘোনা ইউ.পি।

(৩)     করি ডোরের রাজস্ব আয় বৃদ্ধির লক্ষে ব্যাপক আলোচনা করা হয় । ঘোনা ও গাজীপুর বিওপি কমান্ডারগন সভায় জানান ভারত থেকে যে গরু এদেশে প্রবেশ করছে তা করিডোর হচ্ছে । করিডোর ছাড়া কোন গরু প্রবেশ করছে না । এ প্রসংগে সভাপতি রোগক্রন্ত গরুযাতে যাতে এদেশে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য বিওপি কমান্ডার গনকে অনুরোধ জানান, মার্চ ১২ মাসে ঘোনা বিওপি ও গাজিপুর বিওপি হতে গরু ও মহিষ সহ ৭০৫৫ টি পশু করিডোর করা হয়েছে যার মাধমে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৩৫২৭৫০০/=  এধারা অব্যাহত রাখার জন্য সভাপতি সংশ্লিষ্ট বিওপি কমান্ডার গনকে অনুরোধ জানান ।

 

 সিদ্ধান্ত       ঃ           ভারত থেকে আগত যাবতীয় গরুর করিডোর নিশ্চিত করতে হবে ।

বাস্তবায়নে    ঃ           (ক) ঘোনা / গাজীপুর বিওপি কমান্ডার গন ।

(৪)      অন্তমুখী ও বহিমুখী ধৃতমালামাল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। মার্চ/ ১২মাসে ঘোনা ও গাজীপুর বিওপি

কর্তৃক উদ্বারকৃত মালামালের মূল্য=৮৩৪২০/=

 

সিদ্বান্ত        ঃ            চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযান জোরদার করার লক্ষে আরো বেশী করে অভিযান পরিচালনা করতে হবে।

বাস্তবায়নে    ঃ            সংশ্লিষ্ট বিওপি কমান্ডারগন।

(৫)      গাজীপুর বিজিবির আওতায় খাটালের স্থান পরিবর্তনের লক্ষে ব্যাপক আলোচনা করা হয়। সভাপাতি       এলাকার জনসাধারনের নিকট থেকে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সদস্যদের সুপারিশ কৃত প্রাপ্ত  আবেদন পাঠ করে শুনান। প্রাপ্ত আবেদনের প্রেক্ষিতে এলাকার জনসাধারনের যাতায়াত এবং যানবাহন চলাচলের সুবিধার্তে উক্ত খাটালের স্থান পরিবর্তন করা দরকার। এ ব্যাপারে ব্যাপক আলোচনান্তে উভয় বিওপি কমান্ডার গন উক্ত গরুখাটালের স্থান পরিবর্তনের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কতৃ পক্ষকে জানানোর অনুরোধ জানান ।

                   অতঃপর সভায় আর কোন আলোচনা  না থাকায় সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং চোরাচালান প্রতিরোধের সকলের সার্বিকসহযোগিতা কামনা করে সভাপতি সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন

 

 


Share with :

Facebook Twitter